ইউনিয়ন ট্যাক্সের নামে চাঁদা আদায়, হামলায় ১০ শ্রমিক আহত

119

সিলেটের জৈন্তাপুরে ইউনিয়ন ট্যাক্সের নামে চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে বালু উত্তোলনকারী শ্রমিকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। আশঙ্কাজনক তিনজনকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টায় লালাখাল সারী নদীর উৎসমুখ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লালাখাল সারী নদীর উৎসমুখ থেকে স্থানীয় প্রভাবশালীদের নেতৃত্বে অবৈধভাবে শ্রমিকরা বালু উত্তোলন করে আসছিলেন। এসব শ্রমিকদের কাছ থেকে ইউনিয়ন ট্যাক্সের নামে নৌকাপ্রতি ৫০০ টাকা আদায় করেন নিজপাট ইউনিয়নের বর্তমান মেম্বার সয়ফুল ও স্থানীয় রহিম উদ্দিনসহ কয়েকজন। সোমবার সকালে স্থানীয় কয়েকজন চাঁদা তুলতে যান। এসময় শ্রমিকরা ইউনিয়ন ট্যাক্সের রসিদ চাইলে তাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে শ্রমিকদের ওপর হামলা চালান চাঁদাবাজরা। এতে অন্তত ১০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় তিনজনকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে নেওয়া হয়।

গুরুতর আহতরা হলেন চারিকাটা ইউপির বাউরভাগ উত্তর গ্রামের মুছা মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া (৪৮), কামরাঙ্গীখেল দক্ষিণ গ্রামের সুরুজ আলী ছেলে সেলিম আহমদ (৩৫) এবং কামরাঙ্গীখেল উত্তর গ্রামের ফুরকান আলীর ছেলে আব্দুল মালিক (৫০)।

এ বিষয়ে চারিকাটা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান সামসুজ্জামান সেলিম বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে চাঁদাবাজ চক্রটি শ্রমিকদের কাছ থেকে নৌকাপ্রতি ৫০০ টাকা হারে চাঁদা আদায় করে আসছে। তারা চাঁদা আদায়ের বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। শ্রমিকরা চাঁদা না দেওয়ায় চক্রটি তাদের ওপর হামলা চালায়।’

তবে বিষয়টি অস্বীকার করে একই অভিযোগ তোলেন নিজপাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইন্তাজ আলী। তিনি বলেন, প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে একটি চক্র অবৈধভাবে শ্রমিকদের কাছ থেকে চাঁদা তুলে আসছে। সোমবার চাঁদা দাবি করায় শ্রমিকদের সঙ্গে ঝামেলা হয়েছে। তবে কোনো শ্রমিক আহত হননি বলে দাবি করেন তিনি।

জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, বালুশ্রমিকদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় নিয়ে হামলা হয়নি। কেউ চাঁদা তুলতে এসেছিল বলে আমার জানা নেই। বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে শ্রমিকরা নিজেদের মধ্যে মারামারি করেছেন। এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Posts