আর ভাড়া করা বিমানে নয়

727

পাকিস্তানের মাটিতে পুর্নাঙ্গ সিরিজ খেলতে ভাগ ভাগ করে তিন ধাপের শিডিউল বাংলাদেশের। এরই মধ্যে প্রথম ধাপে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে সোমবার রাতে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। পাকিস্তানে সরাসরি বিমান না থাকায় ভাড়া করা বিমানে (চাটার্ড ফ্লাইট) যাতায়াত করে বাংলাদেশ দল। এতে সরাসরি লাহোর একবার যেতে-আসতে বিসিবির খরচ কোটি টাকারও বেশি। বিসিবির এ সিদ্ধান্তে মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছিল।

আরও দুবার পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ দলের। সে অনুযায়ী আগামী মাসের শুরুতে বাংলাদেশ দল সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে পাকিস্তান যাবে, তবে সেটি আর ভাড়া করা বিমানে নয়। বিসিবি পরিচালক আকরাম খান বলেছেন, এবার ভাড়া করা বিমান নয়, দল যাবে কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে।

২২ জানুয়ারি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ‘মেঘদূত’ উড়োজাহাজে পাকিস্তানে যায় বাংলাদেশ দল। একই বিমানে সোমবার রাতে দেশে ফিরে টাইগাররা। ১৬২ জনের ধারণক্ষমতার বিমানটির জন্য যাওয়া আসায় বিসিবি’র খরচ হয় প্রায় দেড় লাখ মার্কিন ডলার (১ কোটি ২৭ লাখ টাকা)। তবে এই সফরে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-০ ব্যবধানে হেরে যায় বাংলাদেশ। সিরিজের শেষ ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়।

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট খেলতে আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় আবার পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ দল। রাওয়ালপিন্ডিতে টেস্ট শুরু ৭ ফেব্রুয়ারি। টেস্ট শেষে বাংলাদেশ ঢাকায় রওনা দেবে ১২ ফেব্রুয়ারি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Posts